Text size A A A
Color C C C C
পাতা

অফিস সম্পর্কিত

কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য ১৯৫৮ সালের ৭ই অক্টোবর তারিখে প্রেসিডেন্টসিয়াল প্রোক্লেমেশন মোতাবেক পূর্ব পাকিস্থান কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন অডিনেন্স ১৯৬১ জারীর মাধ্যমে সর্বপ্রথম পূর্ব পাকিস্থান কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের সৃষ্টি হয়। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭৫ সালের কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন ( সংশোধন) অডিনেন্স ১৯৭৫ এর মাধ্যমে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন ( বিএডিসি) হিসাবে রুপান্তর ঘটে। ফসল উৎপাদনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ বীজ। বাংলাদেশে ধান, গম, ভূট্রা,আলু ইত্যাদি খাদ্য শস্য ও কৃষি জাত পন্য উৎপাদনের জন্য মাটি ও আবহাওয়া অনুকুল। বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে প্রতি বছর বিপুল পরিমান খাদ্য শস্য বিদেশ হতে আমদানী করতে হত এবং দেশে খাদ্য উৎপাদনের জন্য যাবতীয় ফসলের বীজ বিদেশ হতে আমদানীর উপর নির্ভরশীল ছিল। অনেক সময় আমদানীকৃত বীজ দেশে বিলম্বে পৌঁছার কারনে শস্য ফসল উৎপাদনের কাজ ব্যাহত হত। দেশের খাদ্য ঘাটতি পুরণের লক্ষ্যে উন্নতমানের বীজ উৎপাদনে স্বয়ং সম্পূর্ণতা অর্জন এবং গুনগতমানের বীজ যথাসময় চাষীদের নিকট সরবরাহের নিশ্চয়তা বিধানের উদ্দেশ্যে আই ডি এ এবং এফ আর জির আর্থিক ও কারিগরী সহায়তায় ১৯৭৬খ্রিঃ সালে বিএডিসিতে ’’ দানাদার শস্য বীজ প্রকল্প’’ এর কার্যক্রম শুরু হয়। দেশের প্রধান প্রধান কৃষি অঞ্চলে বিএডিসি’র নিজস্ব খামারে ও চুক্তিবদ্ধ চাষীদের মাধ্যমে বীজ উৎপাদন এবং উৎপাদিত বীজ বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে সংরক্ষণ ও পরবর্তী ফসল উৎপাদন মৌসুমে মানসম্পূর্ন বীজ চাষীদের নিকট সহজভাবে বিতরণ করার জন্য বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্র স্থাপন অপরিহার্য হিসাবে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনক্রমে বিএডিসিতে বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়।

 বিগত ১৯৭০খ্রিঃ সনে বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্র,বিএডিসি, রংপুর দপ্তরের নিয়ন্ত্রনাধীনে অত্র দপ্তরের কার্যক্রম সর্বপ্রথম শুরু হয়। ১৯৮০খ্রিঃ সন হতে স্বতন্ত্রভাবে অত্র দিনাজপুর বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্র এর কার্যক্রম শুরু হয় এবং চলমান রয়েছে। বর্তমানে অত্র দপ্তরটি বিএডিসি’র বীজ ও উদ্যান উইং এর আওতাধীনে উন্নতমানের দানাশস্য বীজ সংগ্রহ, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বিতরণ কর্মসূচী হিসাবে আমন ধানবীজ, গমবীজ, বোরো ধানবীজ ও ভূট্রাবীজ সংগ্রহ, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বিতরণ কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে।

ছবি